Terms of Services

ডোমেইন অর্ডার করার পর যদি ডোমেইন রেজিস্টার করা হয়ে যায় তাহলে, তখন টাকা ফেরত চাইলে সেটা ফেরত দেওয়া হবে না, অর্ডার করার সময় কোনো তথ্য ভুল দিলে সেই দায়ভার আপনাকে নিতে হবে, সবসময় নিজে চেষ্টা করবেন সকল তথ্য দিয়ে অর্ডার দেওয়ার জন্য, যদি কোম্পানির কোনো স্টাফ আপনার কাজটি করে দেয় ওই সময় যদি কোনো ভুল হয় সেটার দায়ভার ও আপনার ওপর যাবে কারণ স্টাফ আপনাকে সাহায্য করতে কাজটি করেছে, এই জন্য সব সময় আপনি অর্ডার করবেন যাতে ভুল না হয়, ডোমেইন রেজিস্টার করার পর আপনার মেইল চেক করবেন, অনেক গুরুত্ব পূর্ণ মেইল যেতে পারে, যেমন ডোমেইন কনফার্মাসন লিংক সহ বিলিং এর তথ্য যাবে,ডোমেইন লিংক কনফার্ম না করলে সেটার দায়ভার আপনাকে নিতে হবে

**আপনার ডোমেইন Expire হওয়ার আগে ডোমেইন রিনিউ করে নিতে হবে, Expire হয়ে গেলে এক্সট্রা ফী দিতে হবে , যদি ১ মাস পার হয়ে যাই তাহলে আর ডোমেইন রিনিউ করা সম্ভব হবে না

ডোমেইন রিসেলার এর রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম আপনার WHMCS এর সাথে ইন্টেগ্রেশন করা থাকবে, আলাদা কোনো প্যানেল দেওয়া হবে না, যদি আলাদা অর্থাৎ http://www.publicdomainregistry.com এটার ডোমেইন রিসেলার নেন তাহলে আলাদা ডোমেইন রিসেলার প্যানেল দেওয়া হবে যেটা দিয়া আপনি ডাইরেক্ট ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন, তবে এই রিসেলার এর ডোমেইন প্রাইস বেশী, প্রাইস জানতে লাইভ চ্যাট অথবা কল করে জানেন নিন, আর আমরা ডোমেইন রিসেলার যেটা প্রোভাইড করবো সেটার প্রাইস আমাদের ওয়েবসাইট এর প্রাইস সমান, আমাদের ওয়েবসাইট প্রাইস রিসেলার নিতে হলে আপনার WHMCS প্যানেল থাকতে হবে।  আর কোনো ডোমেইন রিসেলার এর ফান্ড নেওয়ার পর সেটা আর রিফান্ড দেওয়া হবে না, আপনাকে সব ফান্ড ডোমেইন রেজিস্টার এর কাজে ব্যবহার করতে হবে।

আমাদের থেকে হোস্টিং কেনার পর সম্পূর্ণ সিপ্যানেল আপনি বুঝে নিবেন, যদি বুজে না নেন তাহলে সেই দায়ভার আপনাকেই নিতে হবে, সিপ্যানেল বুজে পাওয়ার পর আপনার কারণে হোস্টিং এর কোনো ফাইল বা ডাটাবেস প্রব্লেম হয় সেই দায়ভার কাস্টমারের, ওয়েবসাইট এর কোনো প্লাগিন বা কোড চেঞ্জ করলে অনেক সময় ওয়েবসাইট ডাউন হয়ে যায় বা সাইট এলোমেলো হয়ে যায়, এই ধরণের প্রব্লেম হলে সেটার দায়ভার কাস্টমার এর , হোস্টিং নেওয়ার পর আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে যে আপনার সাইট বা হোস্টিং ঠিক মতো কাজ করছে কিনা, যদি কাজ না করে তাহলে সাপোর্ট টিমকে ১২- ২৪ ঘন্টার মধ্যে জানাতে হবে আর যদি না জানান অর্থ ৩ দিন ৫ দিন ১ মাস পর জানান তাহলে সেটার দায়ভার কাস্টমারকে নিতে হবে, কাস্টমারকে অবশ্যয় হোস্টিং এবং সিপ্যানেল সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে না হলে উল্টা পাল্টা বুজে অনেক ভুল বুজা বুজির সৃষ্টি হবে, সেই জুন এক্সপার্ট কোনো লোক দিয়ে কাজ করাতে হবে,

** আমাদের হোস্টিং এ কোনো এডাল্ট কনটেন্ট বা রাষ্ট্র বিরোধী কোনো কাজে বেবহার করা যাবে না, যদি বেবহার করে থাকেন তাহলে হোস্টিং সাসপেন্ড করে দেওয়া হবে কোনো রকম নোটিশ ছাড়াই, যদি আমাদের হোস্ট কোনো প্রকার প্রব্লেম থাকে তাহলে ১৫ দিনের মধ্যে সার্ভিস বাতিল করলে টাকা ফেরত পাওয়া যাবে।
**আমাদের হোস্টিং নেওয়ার পর যদি ফেইসবুক আপনার ডোমেইন ব্লক করে সেটার জন্য কোম্পানি দায়ী থাকবে না, কাস্টমারকে দায়ভার নিতে হবে।

**যদি আপনি সময় মত হোস্টিং বিল পেমেন্ট না করে অর্থাৎ বিলের নির্ধারিত সময় পার হয়ে ৭ দিন অতিরিক্ত হয়ে গেছে তাহলে কোনো রকম নোটিশ ছাড়াই হোস্টিং মুছে ফেলা হবে, যেটার ডাটা বা ফাইল ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে না, আপনাকে অবশ্যয় মেইল চেক করে অথবা বিলিং পোর্টাল লগইন করে বিল এর সময় জেনে নিতে হবে, অনেক সময় মেইল বা এসএমএস নাও যেতে পারে এই জন্য আপনাকে পোর্টাল লগইন করে দেখে নিতে হবে।

VPS Hosting এ শুধু আমরা কাস্টমারকে WHM প্যানেল দিয়া থাকি root এক্সেস প্রোভাইড করি না. VPS Hosting এ ৩০ দিনের মানি ব্যাক গ্যারান্টি থাকবে, ৩০ দিনের আগে সার্ভিস বাতিল করলে টাকা ফেরত পাবে কাস্টমার।

BULK SMS এর মাধ্যমে কোনো প্রকার খারাপ এসএমএস এবং রাষ্ট্র বিরোধী এসএমএস পাঠানো যাবে না , যদি এইরকম হয় কোনো রকম নোটিশ ছাড়াই একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হবে এবং একাউন্টের ব্যালেন্স ফেরত যোগ্য হবে না, BULK SMS ফান্ড নেওয়ার পর ফান্ড ব্যবহার করতে হবে রিফান্ড দেওয়া হবে না কোনো ভাবেই, কাস্টমার চাইলে এক একাউন্ট থেকে অন্য একাউন্টে এসএমএস ফান্ড ট্রান্সফার করে ব্যবহার করতে পারবে।

Terms of Services

আমাদের এখানে অ্যাড দেওয়ার শর্ত সমূহ:
১. আপনার পেজ প্রমোট বা পোস্ট বোস্ট এর কারণে যদি আমাদের ফেসবুক অ্যাড একাউন্ট ফ্ল্যাগ হয়ে যায় তাহলে আপনার পেমেন্টকৃত টাকা রিটার্ন করবো না এবং এটার বদলে অন্যটা দেওয়া যাবে না, পুনরায় পেমেন্ট করে নতুন অ্যাড রান করতে হবে। যদি রাজি থাকেন তাহলে অ্যাড রান করবো।
২. যদি অন্য জনের পেজ প্রমোট বা পোস্ট বোস্ট এর কারণে একাউন্ট ফ্ল্যাগ করে তাহলে আপনার অ্যাড কোনো প্রকার চার্জ ছাড়াই আমরা নতুন একাউন্টে অ্যাড ট্রানফার করে দেবো।
৩. টাকা রিটার্ন না দেওয়ার কারণ হলো আমাদের অ্যাড একউন্টে ফ্ল্যাগ হলে যে ব্যালেন্স থাকে সেটা ফেসবুক আমাদের রিটার্ন দেয় না।
৪. আপনার অ্যাড এর কারণে আমাদের অ্যাড একাউন্ট ফ্ল্যাগ করেছে কিনা সেটা চাইলে আমরা প্রমান দেখিয়ে দেবো।
৫. অ্যাড একাউন্ট এর ফ্ল্যাগ হওয়ার সময় সীমা অ্যাড দেওয়া থেকে শুরু করে একটিভ হাওয়ার পর পর্যন্ত এমন কি স্পেন্ড শুরু হলেও ফ্ল্যাগ করতে পারে
৬. অ্যাড চলাকালীন অবস্থায় এডিটর বা অ্যাডমিন থেকে রিমুভ করা যাবে না
সুতরাং ওপরের দেওয়ার শর্ত গুলো মেনে আমাদের কন্ফার্ম করুন। ..

অ্যাড একাউন্ট নেওয়ার শর্ত:
১. অ্যাড একাউন্ট দেওয়ার পর যদি একাউন্ট ফ্ল্যাগ অথবা ভেরিফাই চাই সেটার দায়ভার আপনাকে নিতে হবে, একাউন্ট দেওয়ার আগে যদি কোনো সমস্যা হয় সেটা আমাদের দায়িত্ব, একাউন্ট ফ্ল্যাগ অথবা ভেরিফাই ঠিক করার জন্য ফেইসবুক কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে নিতে হবে,
২. এমন হতে পারে ব্যালেন্স অ্যাড করার পর একাউন্ট ফ্ল্যাগ অথবা ভেরিফাই চাইতে পারে সেটার দায়ভার আপনাকে নিতে হবে.
৩.কোনো কারণে অ্যাড একাউন্ট খুঁজে না পেলে আপনি সাথে সাথে আমাদের কে জানাবেন সাপোর্ট অথবা লাইভ চ্যাট এ, যদি ৫ থেকে ৭ দিনের বেশি হয়ে যায় তাহলে আমাদের কিছুই করার থাকবে না,
অবশ্যই অ্যাড একাউন্ট এর নাম ও আইডি নাম্বার বলতে হবে, নাম ও আইডি নাম্বার না বলতে পারলে কোনো কাজ হবে না.

**আমরা যেহেতু প্রি-পেইড অ্যাড অ্যাকাউন্ট প্রভাইড করে থাকি, সেহেতু ব্যালেন্সটা ওই অ্যাকাউন্টে থাকে। আর ওই অ্যাড অ্যাকাউন্ট ফ্ল্যাগ করলে সেই ব্যালেন্স সহ ফ্ল্যাগ হয়। যা ৯০% ক্ষেত্রে ঠিক হয় না, মানে ফেসবুক ফ্ল্যাগ করা অ্যাকাউন্ট আন-ফ্ল্যাগ করে না। তো আপনি যখন প্রি-পেইড অ্যাড অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করবেন বা নিতে চাইবেন, অবশ্যই মনে রাখবেন ওই ফ্ল্যাগ হওয়া অ্যাড অ্যাকাউন্টের ব্যালেন্সের দায়ভার আপনাকে নিতে হবে। এতে প্রমোট আমরা দায়ী থাকবে না। আর সামান্য কারণে যদি একউন্ট ফ্ল্যাগ করে যদি আপিল করেন তাহলে অনেক সময় ব্যাক করে দেবে ফেসবুক  আপিল করুন এখানে 

অনেক সময় ফেসবুক এ্যাড ম্যানেজার ভেরিফাই চাই, কারণ মালয়েশিয়ান একাউন্ট বাংলাদেশে ব্যবহার করা হয় বলে, যায় সমস্যা দেখা দিলে আপনি ফেসবুকে চ্যাট করে আপিল করতে পারবেন ৯০% একাউন্ট ফেরত দিয়ে দেয়, এটার দায়ভার আপনাকে নিতে হবে যেহেতু অ্যাড ম্যানেজার আপনি ব্যবহার করছেন

YouTube ভিউ সাবস্ক্রাইব অনলাইন এক্সচেঞ্জ সফটওয়্যার এর মাধ্যমে দেওয়া হয়, এটা রিয়েল ভিউ রিয়েল সাবস্ক্রাইব, এতে চ্যানেল এর কোনো ক্ষতি হবে না, স্পামিং ও হবে না, এরপর যদি চ্যানেল এর কোনো প্রব্লেম হয় সেটার দায়ভার আপনাকে নিয়ে অর্ডার করতে হবে

**YouTube ভিউ সাবস্ক্রাইব অনেক সময় YouTube আপডেটের কারণে কমে যেতে পারে সেই জন্য কোম্পানি দায়ভার নিবে না, কাস্টমারকে নিতে হবে।

** YouTube ভিউ সাবস্ক্রাইব না পেলে Money Back Guarantee 100% টাকা পেয়ে যাবেন

ওয়েবসাইট ডেলিভারি নেওয়ার সময় কাস্টমার অবশ্যই সব কিছু বুঝে নিবে, যদি বুজে না নেই সেটা কাস্টমারের দায়ভার নিতে হবে , ওয়েবসাইট ডেলিভারি দেওয়ার পর কাস্টমার কোনো কিছু চেঞ্জ করার ফলে বা কোনো সেটিং বা কোড বা প্লাগিন চেঞ্জ বা ডিলেট করার কারণে ওয়েবসাইট যদি নষ্ট বা এলোমেলো হয়ে যায়, যায় জন্য সম্পূর্ণ দায়ভার কাস্টমারের, পরবর্তীতে এটা ঠিক করতে হলে ফী দিতে হবে, আমরা শুধু এককালীন ওয়েবসাইট ফী নিয়ে থাকি এই জন্য ওয়েবসাইট ডেলিভারি এর পর দায়িত্ব কাস্টমারের। পরবর্তীতে এইসকল কথা গ্রহণ যোগ্য নয়
১. আমি ওয়েবসাইট এর কিছুই করি নাই, আমি অনেক দিন ঢুকি নাই
২. আমি কিছু চেঞ্জ করি নাই, আমি জানি না
৩. আমি না বুঝে এইগুলো করছি
যায় সকল প্রশ্নের উত্তর একটাই যখন ওয়েবসাইট ডেলিভারি দেওয়া হয়েছিল, তখন আপনাকে কমপ্লিট ওয়েবসাইট দেওয়া হয়েছিল।

গুগল প্লে স্টোর একাউন্ট ডেলিভারি দেওয়ার পর কাস্টমারদের কোনো ভায়োলেশন এর কারণে যদি একাউন্ট অফ করে দেই তাহলে দায়ভার কাস্টমারের, গুগল প্লে স্টোর একাউন্ট ব্যবহার করার পূর্বে আপনাকে গুগল প্লে স্টোর একাউন্ট এর রুলস ফ্লো করতে হবে, এরপর ব্যবহার করতে হবে, পুতুল হোস্ট শুধু পেমেন্ট কমপ্লিট করে গুগল প্লে স্টোর একাউন্ট দিয়ে দিবে, এই একাউন্ট যেকোনো নাম থাকতে পার, একাউন্ট ডেলিভারী দেওয়ার পর আপনি আপনার মতো করে চেঞ্জ করে নিতে পারবেন, কোনো কারণে যদি একাউন্ট অফ করে দেই তাহলে টাকা ফেরত দেওয়া হবে না।